প্রথম পাতা / বিবিধ / “বিবেক তবে কবে ফিরবে?”

“বিবেক তবে কবে ফিরবে?”

স্রোত হয়তো সমুদ্রের পানি নিয়েই নাড়াচাড়া করে, জলোচ্ছাসের কোন ধর্ম নেই, নোংরা আর অনোংরা নেই। এটা ভাষা-জ্ঞানের সময় না, এটা উত্তাল-পাথারের সময়, সব ভেসে যাবে, দাড়াতে চেয়ে লজ্জা দিয়েন না, দাড়াতে বলবেন না। এটাই আমাদের প্রকৃত চেহারা, যা সামনে আসছে, এটা লুকানোর আর অবকাশ নাই। ভাল মন্দ যাই হোক, এটাই সময়ের দাবী, এটাই সত্য (এ সময়ের)। উদ্দেশ্য যেখানে জীবন, শব্দ সেখানে তুচ্ছ। জাতি হিসেবে দূভাগ্যের চরম সময় পার করছি, যেখানে সুশীল সমাজ শব্দ আর অর্থ নিয়ে ব্যথিত, আমরা নিষ্ঠুরতায় জর্জরিত, রক্তাক্ত, আহত, নিহীত, নিগৃহিত। চাকার নিচে জীবন হারাচ্ছে নিরীহ প্রাণ, সেখানে আপনি আছেন আপনার শব্দকোষ নিয়ে। বাচ্চারা যেখানে রাস্তায় প্রধানমন্ত্রী সেখানে শোভিত সজ্জা-কক্ষে আর নিলর্জ্জ মন্ত্রী হাস্যরসে কৌতুকে তাচ্ছিল্যতায়। নিজের নামে সাথে আজ খান মুছে ফেলতে ইচ্ছা হয়েছে। জাতি হিসেবে বড়ই দূভাগ্যে আজ আমরা। যেখানে পুলিশের লাঠি, বন্দুক আমাদের রক্ষা নয়, ধ্বংসের জন্য উত্থিত।

বড়ই বেদনার সাথে লক্ষিত, লজ্জিত চোখ, নিজের উপরই অভিশাপ দিচ্ছে। কপোর্রেট দাসত্বের সীলমোহরকৃত আমি, কি অবদান রাখছি, পরিবর্তনে, নাকি শুধু পত্রিকার মত ভুয়া শ্লোগানে পরিবর্তনের কথায় মুনাফা করে রাখছি রাজনৈতিক দালালীর মাধ্যমে।

জাতি হিসেবে আমাদের আজ দূভার্গ্য যে, আজ আমাদের সন্তান-রা আমাদের মুখপাত্র, আর আমরা নূপূংশক। আমাদেরকে রুদ্ধ করে রেখেছে এসব রাজনৈতিক সুবিধা-স্বপ্ন, নাহলে মুনাফার শৃংখল।

বড়ই পরিতাপের সাথে হয়তো লক্ষ্য করবো, আন্দোলনের আগে-পরে-
ছাত্রত্ব বাতীল, স্কুলের লাইসেন্স বাতিল, না হলে টিসি, না হলে মামলা, না হলে ধড়-পাকড়, থানা, মহল্লা পর্যায়ে অভিভাবকদের হয়রানী, ছাত্রদের প্রহার, ঘর ভাংচুর, ইত্যাদি।

বড়ই দূভার্গ্য আমাদের। রাজনীতিকরণের জিলাপীর প্যাঁচে সরকারের সকল প্রতিষ্ঠান, পুলিশ, বিডিআর, আর্মি কিংবা সরকারী কর্মকর্তা। সব রাজনৈতিক আদর্শে কথা বলার তোতাপাখি, কেউ সত্য শুনতে চায় না, বলতে চায় না। সত্যর চেয়ে সরকারের, দলের চামচামী শ্রেষ্ঠ। কিন্তু দেশ … ? কেউ দেশের না, কিন্তু প্রত্যেকে দলের। কেউ রাষ্ট্রের না, কিন্তু রাষ্ট্রীয় কোষাগারের। কেউ মানুষের না, কিন্তু মানুষের ভোটের, নোটের। ধিক্কার নিজের প্রতি, যেখানে প্রতিবাদ থেকে আমি দূরে।

আসলেই বিবেক তবে কবে ফিরবে। এমন সুন্দর কথা সত্যিকার অর্থবোধক কথা সত্যি মুগ্ধ করেছে।

লেখক/লেখিকা সম্পর্কে abesharland4

abesharland4

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।